এখন আজ থেকে ৩২ বছর পূর্বে

30 06 2012

এখন আজ থেকে ৩২ বছর পূর্বে বছির উদ্দিন ওরফে ঘুঘু মুন্সি স্বাভাবিক ভাবেই মৃত্যুবরণ করেন। গত ৮ বছর পূর্বেও ধরলার ভাঙ্গনের মুখে তার লাশ কবর থেকে বের হলে গ্রামবাসী পুনরায় কৃষ্ণপুর ঈদগাহ কবর স্থানে দাফন করে। কিন্তু গত রবিবার থেকে পাহাড়ী ঢল ও প্রচুর বৃষ্টিপাতের ফলে আবারও ধরলার তীব্র ভাঙ্গনে এলাকাবাসী তৃতীয়বারের মত উদ্ধার করেছে বছির উদ্দিন ওরফে ঘুঘু মুন্সির লাশ । এমনকি তার কাফনের কাপড়ও অক্ষত অবস্থায় রয়েছে। এমন আশ্চর্যজনক ঘটনাটি ঘটেছে কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার মোগলবাসা ইউনিয়নের চর কৃষ্ণপুর গ্রামে।

এদিকে- ৩২ বছর পর লাশ অক্ষত অবস্থায় পাওয়া গিয়েছে এ খবর মুহুর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে কুড়িগ্রাম সহ আশে পাশে এলাকার হাজার হাজার মানুষ লাশটিকে একনজর দেখার জন্য ছুটে আসে। তবে ইসলামী শরীয়ায় বাধ্যবাধকতা থাকায় লাশের মুখ কাউকে দেখতে দেয়া হয়নি। ফজলুল করিম রহ. জামিয়া মাদ্রাসার মুহতামিম মুফতী আবুল হাসান আনছারী বলেন- লাশের শরীর ও মুখ দেখে মনে হয় মানুষটি এই বুঝি ঘুমিয়ে গেলেন। বছির উদ্দিন ওরফে ঘুঘু মুন্সির ছেলে হযরত আলী (৬৫) ও আশরাফ আলী (৫০) জানান- ৩২ বছর আগে তাদের পিতা স্বাভাবিকভাবে মৃত্যুবরণ করেন। তিনি দীর্ঘ দিন গ্রামের মসজিদে ইমামতী করেছেন। লাশের ওয়ারীশদের কোন আপত্তি না থাকায় ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হক ও স্থানীয় আলেম-ওলামাদের উপস্থিতিতে ধরলা নদীর পূর্ব প্রান্তের চর মাধবরাম গ্রামের ফজলুল করীম (রহ.) জামিয়া ইসলামিয়া মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে পুনরায় কবরস্থ করা হয়েছে।


পদক্ষেপ

Information

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s